Ar-Rahman( الرحمن)
Original,King Fahad Quran Complex(الأصلي,مجمع الملك فهد القرآن)
show/hide
Muhiuddin Khan(মুহিউদ্দীন খান)
show/hide
بِسمِ اللَّهِ الرَّحمٰنِ الرَّحيمِ الرَّحمٰنُ(1)
করুনাময় আল্লাহ।(1)
عَلَّمَ القُرءانَ(2)
শিক্ষা দিয়েছেন কোরআন,(2)
خَلَقَ الإِنسٰنَ(3)
সৃষ্টি করেছেন মানুষ,(3)
عَلَّمَهُ البَيانَ(4)
তাকে শিখিয়েছেন বর্ণনা।(4)
الشَّمسُ وَالقَمَرُ بِحُسبانٍ(5)
সূর্য ও চন্দ্র হিসাবমত চলে।(5)
وَالنَّجمُ وَالشَّجَرُ يَسجُدانِ(6)
এবং তৃণলতা ও বৃক্ষাদি সেজদারত আছে।(6)
وَالسَّماءَ رَفَعَها وَوَضَعَ الميزانَ(7)
তিনি আকাশকে করেছেন সমুন্নত এবং স্থাপন করেছেন তুলাদন্ড।(7)
أَلّا تَطغَوا فِى الميزانِ(8)
যাতে তোমরা সীমালংঘন না কর তুলাদন্ডে।(8)
وَأَقيمُوا الوَزنَ بِالقِسطِ وَلا تُخسِرُوا الميزانَ(9)
তোমরা ন্যায্য ওজন কায়েম কর এবং ওজনে কম দিয়ো না।(9)
وَالأَرضَ وَضَعَها لِلأَنامِ(10)
তিনি পৃথিবীকে স্থাপন করেছেন সৃষ্টজীবের জন্যে।(10)
فيها فٰكِهَةٌ وَالنَّخلُ ذاتُ الأَكمامِ(11)
এতে আছে ফলমূল এবং বহিরাবরণবিশিষ্ট খর্জুর বৃক্ষ।(11)
وَالحَبُّ ذُو العَصفِ وَالرَّيحانُ(12)
আর আছে খোসাবিশিষ্ট শস্য ও সুগন্ধি ফুল।(12)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(13)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অনুগ্রহকে অস্বীকার করবে?(13)
خَلَقَ الإِنسٰنَ مِن صَلصٰلٍ كَالفَخّارِ(14)
তিনি মানুষকে সৃষ্টি করেছেন পোড়া মাটির ন্যায় শুষ্ক মৃত্তিকা থেকে।(14)
وَخَلَقَ الجانَّ مِن مارِجٍ مِن نارٍ(15)
এবং জিনকে সৃষ্টি করেছেন অগ্নিশিখা থেকে।(15)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(16)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অনুগ্রহ অস্বীকার করবে?(16)
رَبُّ المَشرِقَينِ وَرَبُّ المَغرِبَينِ(17)
তিনি দুই উদয়াচল ও দুই অস্তাচলের মালিক।(17)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(18)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(18)
مَرَجَ البَحرَينِ يَلتَقِيانِ(19)
তিনি পাশাপাশি দুই দরিয়া প্রবাহিত করেছেন।(19)
بَينَهُما بَرزَخٌ لا يَبغِيانِ(20)
উভয়ের মাঝখানে রয়েছে এক অন্তরাল, যা তারা অতিক্রম করে না।(20)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(21)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(21)
يَخرُجُ مِنهُمَا اللُّؤلُؤُ وَالمَرجانُ(22)
উভয় দরিয়া থেকে উৎপন্ন হয় মোতি ও প্রবাল।(22)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(23)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(23)
وَلَهُ الجَوارِ المُنشَـٔاتُ فِى البَحرِ كَالأَعلٰمِ(24)
দরিয়ায় বিচরণশীল পর্বতদৃশ্য জাহাজসমূহ তাঁরই (নিয়ন্ত্রনাধীন)(24)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(25)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(25)
كُلُّ مَن عَلَيها فانٍ(26)
ভূপৃষ্টের সবকিছুই ধ্বংসশীল।(26)
وَيَبقىٰ وَجهُ رَبِّكَ ذُو الجَلٰلِ وَالإِكرامِ(27)
একমাত্র আপনার মহিমায় ও মহানুভব পালনকর্তার সত্তা ছাড়া।(27)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(28)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(28)
يَسـَٔلُهُ مَن فِى السَّمٰوٰتِ وَالأَرضِ ۚ كُلَّ يَومٍ هُوَ فى شَأنٍ(29)
নভোমন্ডল ও ভূমন্ডলের সবাই তাঁর কাছে প্রার্থী। তিনি সর্বদাই কোন না কোন কাজে রত আছেন।(29)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(30)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(30)
سَنَفرُغُ لَكُم أَيُّهَ الثَّقَلانِ(31)
হে জিন ও মানব! আমি শীঘ্রই তোমাদের জন্যে কর্মমুক্ত হয়ে যাব।(31)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(32)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(32)
يٰمَعشَرَ الجِنِّ وَالإِنسِ إِنِ استَطَعتُم أَن تَنفُذوا مِن أَقطارِ السَّمٰوٰتِ وَالأَرضِ فَانفُذوا ۚ لا تَنفُذونَ إِلّا بِسُلطٰنٍ(33)
হে জিন ও মানবকূল, নভোমন্ডল ও ভূমন্ডলের প্রান্ত অতিক্রম করা যদি তোমাদের সাধ্যে কুলায়, তবে অতিক্রম কর। কিন্তু ছাড়পত্র ব্যতীত তোমরা তা অতিক্রম করতে পারবে না।(33)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(34)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(34)
يُرسَلُ عَلَيكُما شُواظٌ مِن نارٍ وَنُحاسٌ فَلا تَنتَصِرانِ(35)
ছাড়া হবে তোমাদের প্রতি অগ্নিস্ফুলিঙ্গ ও ধুম্রকুঞ্জ তখন তোমরা সেসব প্রতিহত করতে পারবে না।(35)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(36)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(36)
فَإِذَا انشَقَّتِ السَّماءُ فَكانَت وَردَةً كَالدِّهانِ(37)
যেদিন আকাশ বিদীর্ণ হবে তখন সেটি রক্তবর্ণে রঞ্জিত চামড়ার মত হয়ে যাবে।(37)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(38)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(38)
فَيَومَئِذٍ لا يُسـَٔلُ عَن ذَنبِهِ إِنسٌ وَلا جانٌّ(39)
সেদিন মানুষ না তার অপরাধ সম্পর্কে জিজ্ঞাসিত হবে, না জিন।(39)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(40)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(40)
يُعرَفُ المُجرِمونَ بِسيمٰهُم فَيُؤخَذُ بِالنَّوٰصى وَالأَقدامِ(41)
অপরাধীদের পরিচয় পাওয়া যাবে তাদের চেহারা থেকে; অতঃপর তাদের কপালের চুল ও পা ধরে টেনে নেয়া হবে।(41)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(42)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(42)
هٰذِهِ جَهَنَّمُ الَّتى يُكَذِّبُ بِهَا المُجرِمونَ(43)
এটাই জাহান্নাম, যাকে অপরাধীরা মিথ্যা বলত।(43)
يَطوفونَ بَينَها وَبَينَ حَميمٍ ءانٍ(44)
তারা জাহান্নামের অগ্নি ও ফুটন্ত পানির মাঝখানে প্রদক্ষিণ করবে।(44)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(45)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(45)
وَلِمَن خافَ مَقامَ رَبِّهِ جَنَّتانِ(46)
যে ব্যক্তি তার পালনকর্তার সামনে পেশ হওয়ার ভয় রাখে, তার জন্যে রয়েছে দু’টি উদ্যান।(46)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(47)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(47)
ذَواتا أَفنانٍ(48)
উভয় উদ্যানই ঘন শাখা-পল্লববিশিষ্ট।(48)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(49)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(49)
فيهِما عَينانِ تَجرِيانِ(50)
উভয় উদ্যানে আছে বহমান দুই প্রস্রবন।(50)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(51)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(51)
فيهِما مِن كُلِّ فٰكِهَةٍ زَوجانِ(52)
উভয়ের মধ্যে প্রত্যেক ফল বিভিন্ন রকমের হবে।(52)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(53)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(53)
مُتَّكِـٔينَ عَلىٰ فُرُشٍ بَطائِنُها مِن إِستَبرَقٍ ۚ وَجَنَى الجَنَّتَينِ دانٍ(54)
তারা তথায় রেশমের আস্তরবিশিষ্ট বিছানায় হেলান দিয়ে বসবে। উভয় উদ্যানের ফল তাদের নিকট ঝুলবে।(54)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(55)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(55)
فيهِنَّ قٰصِرٰتُ الطَّرفِ لَم يَطمِثهُنَّ إِنسٌ قَبلَهُم وَلا جانٌّ(56)
তথায় থাকবে আনতনয়ন রমনীগন, কোন জিন ও মানব পূর্বে যাদের ব্যবহার করেনি।(56)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(57)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(57)
كَأَنَّهُنَّ الياقوتُ وَالمَرجانُ(58)
প্রবাল ও পদ্মরাগ সদৃশ রমণীগণ।(58)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(59)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(59)
هَل جَزاءُ الإِحسٰنِ إِلَّا الإِحسٰنُ(60)
সৎকাজের প্রতিদান উত্তম পুরস্কার ব্যতীত কি হতে পারে?(60)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(61)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(61)
وَمِن دونِهِما جَنَّتانِ(62)
এই দু’টি ছাড়া আরও দু’টি উদ্যান রয়েছে।(62)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(63)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(63)
مُدهامَّتانِ(64)
কালোমত ঘন সবুজ।(64)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(65)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(65)
فيهِما عَينانِ نَضّاخَتانِ(66)
তথায় আছে উদ্বেলিত দুই প্রস্রবণ।(66)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(67)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(67)
فيهِما فٰكِهَةٌ وَنَخلٌ وَرُمّانٌ(68)
তথায় আছে ফল-মূল, খর্জুর ও আনার।(68)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(69)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(69)
فيهِنَّ خَيرٰتٌ حِسانٌ(70)
সেখানে থাকবে সচ্চরিত্রা সুন্দরী রমণীগণ।(70)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(71)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(71)
حورٌ مَقصورٰتٌ فِى الخِيامِ(72)
তাঁবুতে অবস্থানকারিণী হুরগণ।(72)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(73)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(73)
لَم يَطمِثهُنَّ إِنسٌ قَبلَهُم وَلا جانٌّ(74)
কোন জিন ও মানব পূর্বে তাদেরকে স্পর্শ করেনি।(74)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(75)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(75)
مُتَّكِـٔينَ عَلىٰ رَفرَفٍ خُضرٍ وَعَبقَرِىٍّ حِسانٍ(76)
তারা সবুজ মসনদে এবং উৎকৃষ্ট মূল্যবান বিছানায় হেলান দিয়ে বসবে।(76)
فَبِأَىِّ ءالاءِ رَبِّكُما تُكَذِّبانِ(77)
অতএব, তোমরা উভয়ে তোমাদের পালনকর্তার কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?(77)
تَبٰرَكَ اسمُ رَبِّكَ ذِى الجَلٰلِ وَالإِكرامِ(78)
কত পূণ্যময় আপনার পালনকর্তার নাম, যিনি মহিমাময় ও মহানুভব।(78)